ঢাকা, আজ সোমবার, ৮ মার্চ ২০২১

দুই মেয়েকে ধ’র্ষণের কথা স্বীকার করল বাবা

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১৫ ০৭:৪২:২২ || আপডেট: ২০১৯-০৯-১৫ ০৭:৪২:২২

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা এলাকায় যমজ দুই কিশোরী মেয়েকে ধ’র্ষণ করেছেন বাবা। এ ঘটনায় দুই কিশোরীর বাবাকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ।এর আগে কিশোরীদের মা তাদের বাবাকে আসামি করে শুক্রবার রাতে শ্রীপুর থানায় মামলা করেন। শুক্রবার রাতেই অভিযুক্ত বাবাকে (৪৫) গ্রে’ফতার করে পুলিশ।

দুই কিশোরীর মা বলেন, প্রায় ২৫ বছর আগে আমাদের বিয়ে হয়। আমাদের সংসারে যমজ দুই কন্যাসন্তানের জন্ম হয়। পরে আমার অনুমতি ছাড়াই আরও দুটি বিয়ে করেন স্বামী। বিয়ের পরপরই আমাকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়। সেই থেকে যমজ সন্তানদের নিয়ে বাবার বাড়িই বসবাস করে আসছি আমি। স্বামী আমাদের ভরণ-পোষণের খরচ বহন না করলেও আমার সঙ্গে মেলামেশা ও দেখা সাক্ষাৎ করত।

এরই মধ্যে নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে ২০১৭ সালের মে থেকে গত ২৮ জুলাই পর্যন্ত বাবার বাড়ি আমার দুই কিশোরী মেয়েকে ধ’র্ষণ করেছে স্বামী। ২-৩ দিন পরপর আমার বাবার বাড়িতে গিয়ে মেলামেশা করত স্বামী। একদিন আমার সামনে দুই মেয়েকে ধ’র্ষণ করে সে। এ বিষয়ে কাউকে বললে আমাদের মে’রে ফেলার হু’মকি দেয়।

শ্রীপুর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মিনহাজ উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় দুই কিশোরীর মা বাদী হয়ে স্বামীর বি’রুদ্ধে শুক্রবার রাতে থানায় মামলা করেছেন। ওই রাতেই অ’ভিযুক্ত বাবাকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে।

শ্রীপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. লিয়াকত আলী বলেন, দুই কিশোরীর বাবার বি’রুদ্ধে ধ’র্ষণ ছাড়াও ডাকা’তি ও মা’দক সেবনের অভি’যোগ রয়েছে। সে খুব হিং’স্র প্রকৃতির। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দুই মেয়েকে ধ’র্ষণের কথা স্বীকার করেছে। কিশোরীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শিহাব খান/এএম/জেআইএম