ঢাকা, আজ শুক্রবার, ৫ মার্চ ২০২১

বৃদ্ধ জয়নাল : একজন সিরিয়াল ধ’র্ষকের লোমহ’র্ষক গল্প

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১৪ ১৮:৩৫:২৪ || আপডেট: ২০১৯-০৯-১৪ ১৮:৩৫:২৪

জয়নাল আবেদীন। বয়স ৫৫ বছর। একের পর এক ধ’র্ষণ করেই যাচ্ছেন তিনি। তার লা’লসার স্বীকার হয়েছে ৬ শিশু। আদালতে চার শিশুকে ধ’র্ষণের দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিচ্ছিলেন। পরে তাদের আরো দুই সহপাঠীকে ধ’র্ষণের কথা বিচারকের কাছে প্রকাশ করা হয়। গত বৃহস্পতিবার (১১ সেপ্টেম্বর) বগুড়া আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় জয়নাল আবেদীন। জয়নাল আবেদীন বগুরা জেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের গোপালপুর খাদুলী গ্রামের ফজর আলীর ছেলে। তিনি তিন সন্তানের জনক। মামলার তদন্তকারী এসআই বলেন, আদালতে প্রকাশ করা তথ্য অনুযায়ী আরও দুই শিশুকে ধ’র্ষণের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘ’টনাটির প্রমাণ পাওয়া গেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ধ’র্ষণের শিকার চার শিশু শিক্ষার্থী জয়নালের প্রতিবেশী। তারা জয়নালের দূর সম্পর্কের নাতনি। হতদরিদ্র পরিবারের চার শিশুর মধ্যে দুই জন তৃতীয় শ্রেণির এবং দুইজন প্রথম শ্রেণির ছাত্রী। জানা যায়, গত ৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে তৃতীয় শ্রেণির দুই ছাত্রী জয়নালের বাড়িতে জলপাই কুড়াতে যায়। এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে জয়নাল ওই দুই শিশুকে জলপাই খাওয়ানের লোভ দেখিয়ে ঘরের ভেতর নিয়ে ধ’র্ষণ করে। এরপর ৮ সেপ্টেম্বর দুপুরে একই কৌশলে প্রথম শ্রেণির দুই ছাত্রীকে ধ’র্ষণ করে সে। এ ঘটনায় ধ’র্ষণের শিকার দুই শিশুর বাবা বাদী হয়ে জয়নাল আবেদীনের বি’রুদ্ধে থানায় দুই মামলা দায়ের করে। গত ১০ সেপ্টেম্বর জয়নালকে গ্রে’ফতারের পর ১১ সেপ্টেম্বর বগুড়া আদালতে হাজির করা হলে সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।