ঢাকা, আজ রোববার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১

পাক্কা মুসলমান দাবি করে ভারতীয় পতাকা ছেঁড়া কিশোরটি হিন্দু!

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৮ ০২:৩৪:১৪ || আপডেট: ২০১৯-০৭-১৮ ০২:৩৪:১৪

একজন ভারতীয় কিশোর নিজেকে পাক্কা মুসলিম বলে দাবি করছে ও ভারতীয় পতাকা ছিঁড়ছে, সম্প্রতি ভারতের সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে এমনটাই দেখা গিয়েছিল।
ভারতের ৭২তম স্বাধীনতা দিবসের পর রোহিত সারদানা নামের এক ভারতীয়র অনুমিশ্রবিজেপি নামক টুইটার হ্যান্ডলে সর্বপ্রথম পোস্ট হয় এই সাম্প্রদায়িক ভিডিওটি। তার সেই অ্যাকাউন্টের ফলোয়ার রয়েছেন কয়েকজন বিজেপি নেতাও।
টুইটারে ভিডিওটি প্রকাশের পরপরই তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। প্রায় ২০ হাজার রিটুইটে নানা রকম জাতি হিংসামূলক মন্তব্য করেন অনেক ভারতীয়রা। ভিডিওটিকে শেয়ার করে ধর্মবিদ্বেষী বক্তব্যও দেন অনেকে।
ঠিক এর কয়েকদিন পর সুরেশ চাভাঙ্ক নামের এক ভারতীয় টিভি মিডিয়াকর্মীর টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট হয় আরেকটি ভিডিও।
সেখানে দেখা যায়, নিজেকে পাক্কা মুসলমান বলে ভারতের পতাকা ছেঁড়া সেই কিশোরকে মারধর করছেন কয়েকজন যুবক। শুধু তাই নয় তাকে দিয়ে বলপূর্বক ‘ভারত মাতা কি জয়’ স্লোগান দেয়া হচ্ছে এবং ‘আমি পাক্কা হিন্দু’ বলানো হচ্ছে।
ভিডিওটি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা ও বিদ্বেষ ছড়িয়ে পড়তে থাকলে তদন্তে নামে ভারতীয় পুলিশ। পুলিশি তদন্তে বেরিয়ে আসে যে তথ্যটি তা হলো, কিশোরটি মুসলমান নয়। সে আসলে হিন্দু ধর্মানুসারী। সূত্র: নিউজ ১৮ ডট কম
এ ঘটনাটি গুজরাতের সুরাত এলাকার। পুলিশ ওই কিশোর এবং আরও এক জনকে গ্রেফতার করে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায়, ওই কিশোর আসলে হিন্দু। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কৌতুকাভিনয় করে কিশোরটি।
ভিডিওটি মজা করতেই করা হয়েছিল বলে জানায় তারা।
এরপর পুলিশ এ দুই কিশোরকে সাবধান করে ছেড়ে দেয়। নিরাপত্তার স্বার্থে ওই দুই কিশোরের নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ।
সূত্র: আনন্দবাজার