ঢাকা, আজ রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১

ভারতে এবার নামাজ পড়ে ফেরার পথে মুসলিম যুবককের ওপর হামলা করল হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৬ ০২:৫৮:৩৯ || আপডেট: ২০১৯-০৭-১৬ ০২:৫৮:৩৯

ভারতে এবার নামাজ পড়ে ফেরার সময় এক মুসলিম যুবককের ওপর হামলা করেছে উগ্র হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা।

শনিবার রাতে দেশটির হরিয়ানা রাজ্যের গুরগাঁও জেলার গুরুগ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। খবর দ্য হিন্দু।

হামলার শিকার মুহাম্মদ বরকত আলম নামের ওই ব্যক্তি জানান, নামাজ শেষে মাথায় টুপি পড়ে ফিরছিলেন, পথিমধ্যে একদল অজ্ঞাত ব্যক্তি তার পথরোধ করে। এরমধ্যে একজন অকথ্য ভাষায় ডাক দিয়ে বলে এই এলাকায় টুপি পড়া নিষেধ।

বরকত বলেন, আমি নামাজ থেকে ফেরার কথা বললে ওই ব্যক্তি আমায় মারধর করে এবং আমায় ‘ভারত মাতা কি জয়’ এবং ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে জোর করে। তাতে আমি রাজি নাহলে আমায় শূকরের মাংস খাওয়ানোর হুমকি দেয়।

এরপর বরকত সেখান থেকে পালাতে চেষ্টা করলে ওই ব্যক্তি তার জামা ছিড়ে নেয়। একপর্যায়ে কান্নায় ভেঙে পড়লে ওই ব্যক্তিরা চলে যায়।

বরকতের চাচাতো ভাই এরপর এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এরপর পুলিশে খবর দেয়।

এ ঘটনায় মামলা দায়ের হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলে খবরে বলা হয়েছে।

সুত্রঃ ইনসাফ টোয়েন্টিফোর

বিজেপি হিন্দুত্বের কার্ড খেলে সফল হয়েছে: ওয়াইসি

অল ইন্ডিয়া মজলিশ-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন (মিম) প্রধান ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, দেশে হিন্দুদের থেকে নয়, হিন্দুত্ববাদ থেকে বিপদ রয়েছে। লোকসভা নির্বাচনে হিন্দুত্ববাদী বিজেপির বিপুল জয়ের পরে আজ (শুক্রবার) এক বেসরকারি টিভি চ্যানেলে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি ওই মন্তব্য করেছেন।

ওয়াইসি বলেন, ‘ইলেকট্রনিক ভোট যন্ত্রে (ইভিএম) নয়, হিন্দু মনের সঙ্গে কারচুপি হয়েছে। এই নির্বাচনে জাতপাত ও ধর্ম মুখ্য বিষয় হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। বিজেপি হিন্দুত্বের কার্ড খেলেছে এবং তারা সফল হয়েছে। গোটা নির্বাচনে উন্নয়নের ইস্যু অনুপস্থিত ছিল।’

তিনি বলেন, ‘আমি কোনো হিন্দু ভাইয়ের বিরোধী নই, আমি হিন্দুত্বের বিরোধী ছিলাম, আছি এবং থাকব ইনশাআল্লাহ্‌ যতদিন বেঁচে থাকব।’

ওয়াইসি বলেন, ‘মোদি গেরুয়া নিকাব পরে দেশের জনতার মনে রিগিং করেছেন। আমি মনে করি বিজেপির সফলতার মধ্যে রাজনৈতিক মুসলিম নির্মূলকরণ আরও বাড়বে। কারণ ৩০৩ আসনে বিজেপি জয়ী হলেও এনডিএ’র কাছে কেবল একমাত্র মুসলিম আছে, বিজেপি’র কোনো মুসলিম প্রার্থী জয়ী হননি। ওনার (প্রধানমন্ত্রীর) যে কথা, ‘সবার সঙ্গে সকলের উন্নয়ন’ এটা একদমই সত্যি নয়। এজন্য আমি বলতে চাই মুসলিম রাজনৈতিক নির্মূলকরণ বাড়বে এবং এটা আমাদের গণতন্ত্রের জন্য ঠিক নয়।’

ওয়াইসি বলেন, ‘এটা অবশ্যই বলার যে বিরোধী দলগুলো বারবার যে বলছে ইভিএম কারচুপি হয়েছে, আমি মনে করি বিগত পাঁচ বছরে নরেন্দ্র মোদি ও আরএসএস হিন্দু মনে কারচুপি করেছে। জাতীয়তাবাদ ও আগ্রাসী হিন্দু পরিচিতিকে সামনে রেখে ওরা সফল হয়েছে, বিরোধীরা যার মোকাবিলা করতে পারেনি। ফলে বেকারত্ব থেকে বিভিন্ন ইস্যু সামনে আসেইনি।’

লোকসভা নির্বাচনে হায়দ্রাবাদ থেকে ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে, মহারাষ্ট্রের আওরঙ্গবাদ থেকে জয়ী হয়েছেন ‘মিম’ প্রার্থী ইমতিয়াজ জলিল।

ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি