ঢাকা, আজ বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১

জার্মানিতে নামাজরত মুসল্লিদের ওপর হামলার হু*মকি আপাতত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ৩টি মসজিদ

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৩ ০২:০৭:৫৬ || আপডেট: ২০১৯-০৭-১৩ ০২:১৪:৪২

নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে জার্মানিতে তিনটি মসজিদ আপাতত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

গতকাল (১১ জুলাই) ই-মেইলের মাধ্যমে জার্মানির বেশ কিছু মসজিদে বোমা হামলার হু*মকি দেয় দুর্বৃত্তরা।

হু*মকির পর মসজিদগুলোতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। পরে নিরাপত্তার খাতিরে তিনটি মসজিদ আপাতত বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

এর মসজিদ গুলোতে যেতে স্থানীয় মুসল্লিদের নিষেধ করে দেয় দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

তুরস্কের সংবাদ সংস্থা আনাদোলু জানায়, দক্ষিণ জার্মানির বেভারিয়াতে দুটি মসজিদ, পেসিং ও ফ্রেইমানের দুটি মসজিদে এবং রাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যের উত্তরাঞ্চলের ইসারলোন শহরের একটি মসজিদে ই-মেইলে হু*মকি দিয়েছে একটি উগ্রপন্থী সংগঠন।

এ ছাড়া বৃহস্পতিবার জার্মানির কলোনি সিটিতে অবস্থিত সবচেয়ে বড় মসজিদেও একই ধরনের ই-মেইল পাঠিয়েছে সংগঠনটি।

এসব ই-মেইলে নামাজরত মুসলিমদের ওপর হামলা চালানোর হু*মকি দেয়া হয়েছে। ডানপন্থী ওই সংগঠনটি সেখানে লিখেছে, জার্মানের জেলে অন্তরীণ তাদের সংগঠনের সদস্যদের না ছেড়ে দিলে এসব মসজিদে বোমা হামলা চালানো হবে।

ইসারলোন শহরের মসজিদে নামাজের জায়গায় বোমা রাখা আছে বলে ই-মেইলে হু*মকি দিয়েছে তারা।

এমন খবরে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত এসব মসজিদে তল্লাশি চালায়। তবে তল্লাশিতে কোনো মসজিদেও সন্দেহজনক কিছুই পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়দের বক্তব্য, বোমা হামলা চালানোর এমন হু*মকি নিছক ধাপ্পাবাজি ও ভুয়া। তবু নিরাপত্তার খাতিরে তিনটি মসজিদ খালি করে দেয় পুলিশ।

সাম্প্রতিক সময়ে জার্মানিতে উগ্রপন্থী কিছু সংগঠন মুসলিমবিরোধী অপপ্রচারে নেমেছে। এতে সেখানে মুসলিমদের প্রতি হিংসাত্মক মনোভাব বেড়ে গেছে। ফলস্বরূপ মুসলিমদের প্রতি ঘৃণামূলক হামলার ঘটনাও ঘটছে।