ঢাকা, আজ শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

সিইসির ঠাঁই বাংলার মাটিতে হবে না: বিএনপি নেতা আলালের হুঙ্কার

প্রকাশ: ২০২০-১০-২১ ২১:০০:৩০ || আপডেট: ২০২০-১০-২১ ২১:০০:৩০

ভবিষ্যতে কোনো প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) যাতে ভোট নিয়ে নাটক করতে না পারে সেজন্য এই নির্বাচন কমিশনারকে (কে এম নূরুল হুদা) বাংলার মাটি থেকে বিদায় করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুলের সামনে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

আলাল বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচন ও ২০১৮ সালের নির্বাচনের মাধ্যমে এটাই প্রমাণিত হয় এই সরকারের কাছে সুষ্ঠু নির্বাচন আশা করা আর হিজড়াদের কাছে সন্তান আশা করা একই কথা।

তিনি বলেন, দেশে ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে। এই ধর্ষণের কারণে সবাই আতঙ্কিত। আমার শিশু, আমার কন্যা, আমার স্ত্রী, আমার মা, বোন, দাদি, নানি এমনকি ৭০ থেকে ৮০ বছরের বৃদ্ধাদের ওপর সরকারি ছত্রচ্ছায়ায় এই দলের নেতাকর্মীরা ঝাঁপিয়ে পড়ছে।

বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনকে যারা ধর্ষণ করেছে। ২০১৮ সালের নির্বাচনের মাধ্যমে যারা গণতন্ত্রকে হরণ করেছে। তারা ধর্ষণ করতে কাউকে ছাড়বে না-এটাই তো স্বাভাবিক।

তিনি বলেন, এখন বিএনপির সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় যে, আমরা এই একটা, দুটো আসন নেব নাকি এই দানবকে সরানোর জন্য লড়াই করব। একই সঙ্গে এই নির্বাচন কমিশনারকে বাংলার মাটি থেকে বিদায় করতে হবে, যাতে আর কোন নির্বাচন কমিশনার এই নির্বাচন নিয়ে নাটক না করতে পারে।

যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন সরদারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান মো. শাজাহান, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, ঢাকা-৫ এ ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ, মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ রবিন, মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহিন প্রমুখ।