ঢাকা, আজ রোববার, ১ নভেম্বর ২০২০

বৃদ্ধ বাবাকে রড দিয়ে বে’দম পি’টু’নি, এক ফোটা পানিও খেতে দেয়নি ছেলে !

প্রকাশ: ২০২০-১০-১৮ ২০:১৭:৪০ || আপডেট: ২০২০-১০-১৮ ২০:১৭:৪০

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় নুরুল হক নামে ৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ বাবাকে র’ড দি’য়ে পি’টি’য়ে ঘরে ব’ন্দি করে রেখেছে বখাটে ছেলে। এসময় বাবা পানি খেতে চাইলে তাও দেয়নি ছেলে। এলাকাবাসী জানান, উপজেলার কেঁওচিয়া ইউপির ৫ নম্বর ওয়ার্ডের তেমুহনীর পেইরগার বাড়ির গোলাম ছোবাহানের ছেলে মো. নুরুল হককে তার ব’খাটে ছেলে মো. ফরিদ গত বৃহস্পতিবার বিকেলে র’ড দিয়ে এ’লোপা’তাড়ি আ’ঘা’তের পর ঘরে ব’ন্দি করে রাখে।

র’ক্তা’ক্ত বাবাকে চিকিৎসা ক’রানোতো দূরের কথা, বন্দি অবস্থায় এক গ্লাস পানি পর্যন্ত খেতে দেয়নি। র’ডের আ’ঘা’তের ব্যা’থায় কা’তরানো বাবার আকুতি ছেলের মন গলাতে পারেনি। আ’ঘা’তের পর বিনা চিকিৎসায় অ’নাহারে থাকতে হয়েছে দীর্ঘ ২০ ঘণ্টা। পরে ছেলের অনুপস্থিতিতে লোকজনের সহায়তায় বাড়ি থেকে উ’দ্ধার হওয়ার পর চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যান তিনি।

আ’হ’ত বাবা মো. নুরুল হক জানান, ছেলে ফরিদ কখনো তাকে ভরন পো’ষণ দেয়নি। বরং তার চাচি খালেদা বেগমের প্র’রোচ’নায় দীর্ঘদিন যাবৎ আমার ওপর নি’র্যাত’ন চা’লিয়ে আসছে। জু’য়া খেলে ও নে’শা করে ঘরে ফিরে বহুবার আমাকে মা’রধ’র ক’রেছে। গত কিছুদিন যাবৎ আমার বসত ভিটে বিক্রি করে তাকে টাকার দেয়ার জন্য বলে।

আমি বাপ-দাদার রেখে যাওয়া ভিটে বিক্রি করতে পারবো না বলে জানিয়ে দিলে ছেলে ফরিদ আমাকে মা’রধ’র করে ও নানা রকম হু’মকি দেয়। তিনি আরো বলেন, ঘ’টনার দিন ছেলে ফরিদ পুনরায় আমাকে গা’লি-গা’লাজ করে এবং জায়গা বিক্রি করে টাকা দিতে বলে। তাতে প্রতিবাদ করলে ছেলে আমাকে কি’ল, ঘু’ষি ও লা’থি দি’তে শুরু করে। পরে র’ড দিয়ে আ’মার মা’থায় আ’ঘা’ত ক’রার সময় চোখের পাশে আ’ঘা’ত পাই।

মা’রধ’রের এক পর্যায়ে মা’টিতে লু’ঠিয়ে প’ড়লে ছেলে আমাকে পুনরায় লা’থি দেয় এবং মাটিতে টা’না হেঁ’চড়া করতে থাকে। পরবর্তীতে র’ক্তা’ক্ত অ’বস্থায় আমাকে ঘরে বন্দি করে রাখে। এ সময় কেউ যেন আমাকে ঘরের দরজা খুলে না দেয় সেজন্য সবাইকে শা’সিয়ে দেয়। মা’রধ’রে’র পর র’ক্তা’ক্ত অ’বস্থায় একটু পানি খেতে চাইলে ছেলে আমাকে পানি পর্যন্ত খেতে দেয়নি।

গতকাল ফরিদ ঘর থেকে বের হয়ে গেলে সবাইকে অনুরোধ করে পা’লিয়ে এসে সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাই। সাতকানিয়া থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন জানান, এ ঘ’টনায় আ’হ’ত বাবা মো. নুরুল হক বাদী হয়ে থা’নায় একটি অ’ভিযোগ দায়ের করেছে। অ’ভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ঘ’টনায় জ’ড়িত বখাটে ছেলেকে গ্রেফ’তারের জন্য কাজ শুরু করে দিয়েছে।