ঢাকা, আজ শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০

করোনাজয়ী রুমিন ফারহানা যা বললেন

প্রকাশ: ২০২০-০৮-২৬ ২২:১৬:২৬ || আপডেট: ২০২০-০৮-২৬ ২২:১৬:২৬

প্লাজমা দিয়েছেন সদ্য করোনাজয়ী বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। বুধবার ধানমণ্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে প্লাজমা ও ব্লাড ডোনেশন সেন্টারে গিয়ে তিনি প্লাজমা দেন।
null

null

null
প্লাজমা দেয়া শেষে রুমিন ফারহানা বলেন, করোনা লুকিয়ে রাখার বিষয় না। সে কারণে করোনা পজিটিভ জানার সঙ্গে সঙ্গে আমি ফেসবুকে সেটা জানিয়েছি। দেশের সব মিডিয়ার সাংবাদিক ভাইয়েরা সেটা নিয়ে সংবাদ করে সবাইকে জানিয়েছেন। এতে আমার প্রতিবেশী এবং আমার সঙ্গে যাদের যোগাযোগ করার কথা তারা সতর্ক থাকতে পেরেছেন।null

null

null

তিনি আরও বলেন, করোনার শুরু থেকেই আইসিইউ-ভেন্টিলেটর দূরে থাকুক, সরকারি হাসপাতালগুলোতে পর্যাপ্ত অক্সিজেনও নেই। প্লাজমা থেরাপির মাধ্যমে রোগীদের যদি আইসিইউ পর্যন্ত যেতে না হয়, বা রেমডিসিভিরের মতো দামি ওষুধ নিতে না হয়- তাহলে সেটাও অনেক বড় একটা প্রাপ্তি। আমি বিশ্বাস করি, করোনা থেকে সেরে ওঠা প্রতিটা মানুষ যদি অন্যnull

null

null কোনো বড় অসুস্থতায় আক্রান্ত না থেকে থাকেন তাহলে প্লাজমা দেয়া তাদের কর্তব্য। আমি সেই কর্তব্যটিই পালন করতে এসেছি। আমার জেনে খুব ভালো লাগছে এই রক্ত দিয়ে ৫ জন গুরুতর অসুস্থ করোনা রোগী উপকৃত হবেন।
null

null

null
রুমিন ফারহানা বলেন, আমি আশা করি- করোনা থেকে সেরে ওঠা প্রতিটি মানুষ প্লাজমা দেবেন। এই ভয়ংকর মহামারীর সময় সরকার আমাদের পাশে দাঁড়ায়নি, তাই আমাদের সবার উচিত নিজেদের পাশে দাঁড়ানো।null

null

null

এ সময় ডা. জাফরুল্লাহ দেশের সার্বিক করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক মাহাবুবুর রহমান, প্যাথলজি ডিপার্টমেন্টের প্রধান গোলাম মোহাম্মদ কোরাইশি,null

null

null গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের পরিচালক, প্রশিক্ষণ ও সনোলজিস্ট মোহাম্মদ শওকত আলী আরমান প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।