ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

২১ সেকেন্ডেই ৩২ লাশ মহূর্তের মধ্যেই লাশের স্তুপে পরীনিত হলো বুড়িগঙ্গা

প্রকাশ: ২০২০-০৭-০১ ১৮:৩২:০৬ || আপডেট: ২০২০-০৭-০১ ১৮:৩২:০৬

গতকাল সোমবার (২৯ জুন) সকালে বুড়িগঙ্গা নদীতে একটি লঞ্চডুবির দূর্ঘটনা ঘটে। রাজধানীর শ্যামবাজার এলাকার বুড়িগঙ্গা নদীতে ডুবে গেছে একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ। লঞ্চটিতে অর্ধশতাধিক যাত্রী ছিল।

null

null

null

ডুবে যাওয়া লঞ্চটির নাম মর্নিং বার্ড। ময়ুর-২ নামের একটি লঞ্চের ধাক্কায় অন্তত ৫০ যাত্রী নিয়ে ডুবে গেছে লঞ্চটি। এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করেছেন।

null

null

null

মাত্র ২১ সেকেন্ডেই বড় একটি লঞ্চ রীতিমতো চাপা দিয়ে ছোট একটি লঞ্চকে ডুবিয়ে দিয়েছে। মর্নিং বার্ড নামের ছোট লঞ্চটিতে যাত্রী ছিল ৮০ জনের মতো। তাদের মধ্যে কমপক্ষে ৩২ জনই লাশ হয়ে গেছে। শত শত লঞ্চ-নৌকা যেখানে ভিড় জমিয়ে থাকে, রাজধানীর সদরঘাটের কাছে।

null

null

null

মুন্সীগঞ্জের কাঠপট্টি থেকে সদরঘাটে এসে নোঙর করতে যাচ্ছিল মর্নিং বার্ড। ময়ূর-২ লঞ্চটিও চাঁদপুর থেকে সদরঘাটে এসে যাত্রী নামিয়ে ভিন্ন স্থানে নোঙর করতে যাচ্ছিল। নিহতদের সবাই মুন্সীগঞ্জের বাসিন্দা। তাদের বাড়ি বাড়ি এখন মাতম। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত ১০-১২ জন নিখোঁজ null

null

nullরয়েছে বলে দাবি করেছে স্বজনরা। উদ্ধারকর্মীরা ২৫ জনকে জীবিত উদ্ধারের দাবি করেছেন।

null

null

null

দুপুরে ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে গিয়ে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী বলেন, ‘এটি কোনো দূর্ঘটনা নয়, বিষয়টি পরিকল্পিত হ’ত্যাকাণ্ড বলে মনে হয়েছে। মৃতদের পরিবারকে দেড় লাখ টাকা করে দেওয়ার পাশাপাশি লাশ দাফনের জন্য ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া null

null

nullসাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সাত দিনের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।