ঢাকা, আজ রোববার, ১ নভেম্বর ২০২০

সংসদে দাঁড়িয়ে ওসামা বিন লাদেনকে ‘শহিদ’ আখ্যা দিলেন ইমরান খান

প্রকাশ: ২০২০-০৬-২৬ ১১:০৯:৪৬ || আপডেট: ২০২০-০৬-২৬ ১১:০৯:৪৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : গণতন্ত্রের বেদিতে দাঁড়িয়ে জ’ঙ্গিনেতা ওসামা বিন লাদেনকে ‘শহিদ’ আখ্যা দিলেন ইমরান খান। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী সাফ বলেন, ”ওসামা বিন লাদেন একজন শহিদ। আমেরিকার লড়া’ইয়ে যোগ দিয়ে ভুল করেছে পাকিস্তান।null

null

null

সন্ত্রা’সবা’দীদের চারণভূমি পাকিস্তানের স্বরূপ বিশ্বের কাছে অজানা নয়। তবুও আফগানিস্তানে মার্কিন স্বার্থ র’ক্ষায় ইসলামাবাদকে কোটি কোটি ডলার দান করে এসেছে ওয়াশিংটন। তবে মার্কিন মসনদে বসে সেই ”ভিক্ষা”য় লাগাম টেনেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফলে null

null

nullইসলামাবাদ-ওয়াশিংটন সম্পর্কে বরফ আরও জমাট বেঁ’ধেছে।

বৃহস্পতিবার সেই বিষয় আরও স্পষ্ট করে পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে ইমরান বলেন, ”সন্ত্রা’সবা’দের বি’রু’দ্ধে আমেরিকার লড়া’ইয়ে প্রাণ দিয়েছেন null

null

null৭০ হাজার পাকিস্তানি। ওই যু’দ্ধে আমাদের অংশগ্রহণ উচিত হয়নি। আল কায়দার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেন একজন শহিদ।”

এদিকে, ইমরানের মন্তব্য প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে তু’মু’ল জ’ল্পনা। খো’দ পাক নাগরিকদের একাংশই রীতিমতো সমালো’চনায় মুখর null

null

nullহয়েছেন। বিশ্লে’ষকদের একাংশের মতে, আমেরিকাকে চা’পে ফেলতেই উদ্দে’শ্যপ্রণো’দিতভাবেই এই মন্তব্য করেছেন ইমরান। তিনি ঘু’রিয়ে আমেরিকার কাছে আর্থিক ম’দত চাইছেন। null

null

null

কারণ, করোনা ভাইরাসের জেরে পাকিস্তানের ভ’গ্নপ্রায় অর্থনীতি আরও ভ’ঙ্গুর হয়ে পড়েছে। উলেখ্য, গত বছর আমেরিকা সফরে গিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কিন্তু সরাসরি আল-কায়দা প্রধানকে হ’ত্যার কৃতিত্ব দাবি করেছিলেন। আমেরিকা সফরে গিয়ে সে দেশের একটি null

null

nullসংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাত্‍কারে ইমরান বলেছিলেন, লাদেনের গো’পন ডেরা খুঁ’জে বার করতে আমেরিকাকে সাহায্য করেছিল আইএসআই।

অর্থাত্‍, প্রকারান্তরে তিনি স্বী’কার করে নিয়েছিলেন যে, লাদেন যে পাকিস্তানে ছিল, তা জানত ইসলামাবাদ। এবার সেই কথা থেকে একেবারে null

null

nullঘুরে গিয়ে লাদেনকেই শহিদ আখ্যা দিয়ে ফের নয়া বিত’র্ক উ’সকে দিয়েছেন ইমরান খান। যদিও সন্ত্রা’সবা’দীদের চারণভূমি পাকিস্তানের স্বরূপ বিশ্বের কাছে অজানা নয়। সংসদে ইমরান খানের দেওয়া ভাষণটি null

null

nullদেখুন..। সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে, টাইমস নাও