ঢাকা, আজ শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০

কোরআনকে অপমানিত করার সাহস কি করে হয় ?? দ্রুত গ্রেপ্তার করুন

প্রকাশ: ২০২০-০৫-৩১ ১৮:৪৩:২৪ || আপডেট: ২০২০-০৫-৩১ ১৮:৪৬:০৭

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি এই হিন্দু মালাউনের বাচ্চাকে যেখানেই থাকেনা কেন বের করে গ্রেপ্তার করুন তাকে ফাসিঁতে জোলান। এই কুলাংগার মালাউনের বাচ্চা আমাদের আল্লাহ পাকের কালাম কোরআনকে অপমানিত করেছে।আপনার শাসনা আমলে হিন্দু মালাউনের বাচ্চাদের
null

null

null
দিন দিন সাহস বেড়ে চলছে। কেন এত সাহস তাদের বাড়ছে আপনি তাদের বিচার করেন না কেন বিচার যদি করতেন তাহলে মালাউনের বাচ্চারা আমাদের আল্লাহ ও রাসূল (সাঃ)কে ও কোরআনকে অপমানিত করার সাহস ফেত না। নিশ্চয় আমার আল্লাহর আযাব গজব নাযিল হইতেছে হবে ইনশাআল্লাহ।source::(bartabahok )(https://web.facebook.com/groups/1979218952385595/permalink/2323721851268635/)
null

null

null
ঘরের ফ্যান ঠিক করতে না পারায় ইঞ্জিনিয়ার ছেলের সার্টিফিকেট ছিঁ’ড়ে ফেলল মা,অতঃপর

প্রচণ্ড গরমের মধ্যে বাড়ির ফ্যান নষ্ট হয়ে গেছে। আর ওই ফ্যান ঠিক না করতে পারায় ইঞ্জিনিয়ার ছে’লের সার্টিফিকেট ছিঁ’ড়ে ফে’ললেন মা! করোনা ভাইরাসের সংকটের মধ্যে এমনই ঘটেছে ভারতে। খবর এফনিউজহাব ডট কমের।
null

null

null
ভারতীয় গণমাধ্যম কলমের কলকাতার প্রতিবেদনে বলা হয়, চারিদিকে লকডাউন। বাড়ি থেকে বেরোন নি’ষেধ। বাড়িতে বসে বসে সবারই মেজাজের ১২ বেজে আছে। অনেকেই খিটখিটে হয়ে যাচ্ছেন। আবার অনেকেই নিজের নানান কাজের মাধ্যমে নিজেকে ব্যস্ত রাখছেন। কিন্তু
null

null

null
এর মধ্যেই যদি আপনার বাড়িতে ফ্যান খারাপ হয়ে যায়। আর ইলেক্ট্রিশিয়ান আসতে পারবে না বলে আপনি জানতে পারেন। আর বাড়িতেই যদি থাকে ইলেক্ট্রিক ইঞ্জিনিয়ার ছে’লে তাহলে তো কোনও ব্যাপারই না!
null

null

null
কিন্তু এমন মুহূর্তে যদি জানতে পারেন ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার ছে’লেও সেই ফ্যান সারাতে পারছে না তাহলে একে গরম আরেকদিকে ছে’লের ওপর রাগ দুটোই একসাথে উথলে পড়ার কথা কিনা?
null

null

null

ঠিক এমন টাই ঘটেছে এই পরিবারে। হঠাৎ বাড়ির ফ্যান খারাপ হয়ে যাওয়ায় গ’রমে না’জেহাল অবস্থা মা’য়ের। তখন সে তার মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার ছে’লেকে ডা’কে। ছে’লে মা’য়ের কথা মতো অনেক্ষণ ধরে দেখেও সেই ফ্যানের অসুবিধে খুঁজতে অ’ক্ষম হয়।
null

null

null
তখনই ফোন করে আসেন ইলেক্ট্রিশিয়ান। সে কিছুক্ষনের মধ্যেই সেই ফ্যানকে ঠিক করে লাগিয়ে দিয়ে চলে যায়। এর মাঝেই রাগে অ”গ্নিশর্মা হয়ে ওঠেন মা। রা’গে সে ছেলের ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারিং এর সার্টিফিকেট হাতে নিয়ে ছে”লের সামনেই ছিড়ে ফেলে।
null

null

null