ঢাকা, আজ শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

এক খু’ন লুকাতে গিয়ে ৯ জনকে হ’ত্যা!

প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৭ ১৪:২৬:১৪ || আপডেট: ২০২০-০৫-২৭ ১৪:২৬:১৪

ভারতের তেলেঙ্গানার রাজ্যের একটি কুয়ো থেকে যে ৯ জনের লা’শ করা হয়েছিল তারা সবাই হ’ত্যাকা’ণ্ডের শি’কার হয়েছিলেন। একজনের খু’ন চাপা দিতে গিয়ে ওই ৯ জনকে হ’ত্যা করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। হ”ত্যাকাণ্ডে জড়িত অ’ভিযোগে সঞ্জয়কুমার যাদব null
null
nullনামের এক যুবককে সোমবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদের উপকণ্ঠে গোরেকুন্টা গ্রামের একটি null
null
nullকুয়ো থেকে চারজনের লা’শ উদ্ধার হয়। পরদিন শুক্রবার মেলে আরও পাঁচ জনের ম’রদেহ। সেখানে একই পরিবারের মকসুদ, তার স্ত্রী নিশা, দুই ছেলে সোহেল ও শাবাদ, মেয়ে বুশরা খাতুন এবং তিন বছরের null
null
nullনাতি শাকিলের লা’শ পাওয়া যায়। এছাড়া ত্রিপুরার বাসিন্দা শাকিল আহমেদ, বিহারের শ্রীরাম ও শ্যাম নামের আরও তিন শ্রমিকের লা’শ উদ্ধার করা হয়। নি’হত ৯ জন মধ্যে ৭ জনই এক ব্যাগ কারখানায় null
null
nullকাজ করতেন। প্রথমে পুলিশ জানায়, বেতন না পেয়ে একই পরিবারের ৬ জনসহ মোট ৯ জন আত্মহ’ত্যা করেছেন। কিন্তু লা’শ উদ্ধারের তিনদিন পর তাদের মৃত্যুর রহস্য সামনে আনলেনতদন্তকারীরা। পুলিশের null
null
nullদাবি, গত মার্চে এক নারীর হ’ত্যাকা’ণ্ডকে চাপা দিতেই এই হ’ত্যাকা’ণ্ড ঘটিয়েছে অ’ভিযুক্ত সঞ্জয়কুমার যাদব। সে ওই ৯ জনের খাবারে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে দিয়েছিল। তারপর তারা অচেতন হয়ে পড়লে দেহগুলোnull
null
null কুয়োয় ফেলে দেয় সে। তেলেঙ্গানার গিসুগোন্ডা মণ্ডল গ্রামের এই হ’ত্যাকা’ণ্ডের নেপথ্যে রয়েছে মার্চ মাসে নি’হত এক নারীরহ’ত্যাকা’ণ্ড। ওই নারীর সঙ্গে আত্মীয়তা ছিল এই পরিবারের। ওয়ারাঙ্গাল পুলিশ null
null
nullকমিশনার ভি রবিন্দর জানিয়েছেন, একটা খু’নকে চাপা দিতে সে আরও ৯টি খু’ন করেছে। জানা গেছে, মকসুদের স্ত্রী সঞ্জয় যাদবকে প্রায়ই হু’মকি দিতেন, তিনি ওই নিখোঁজ নারীর বিষয়ে পুলিশকে জানাবেন। বিহার থেকে আগত সঞ্জয় এরপরই ‘খু’নের পরিকল্পনা করা শুরু করে। অ’ভিযুক্ত যুবক খু’নের কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।null
null
null