ঢাকা, আজ বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই : সাকিব

প্রকাশ: ২০২০-০৫-২১ ১৭:৩১:১৮ || আপডেট: ২০২০-০৫-২১ ১৭:৩১:১৮

স্পোর্টস ডেস্ক: পবিত্র শবে কদরের রাতে মুমিন বান্দারা ক্ষমাপ্রার্থনা ও শান্তি-সমৃদ্ধি কামনায় প্রার্থনা করেন মহান রবের কাছে। লাইলাতুল কদরের এই রাতটি ফজিলতপূর্ণ ও বরকতময়। মহান এই রাতে আল্লাহ-তায়ালার কাছে ফরিয়াদ জানিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। করোনাভাইরাস ও অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় আম্বানের দুর্যোগময় মুহূর্তে ফজিলতপূর্ণ লাইলাতুল কদরের রাতে আল্লাহর দরবারে নিজেদের ভুলভ্রান্তির জন্য ক্ষমা চেয়ে নিতে ভক্ত-সমর্থকদের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টার বয় সাকিব। বুধবার রাতে null
null
nullনিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দেওয়া এক পোস্টে এ আহ্বান জানান সাকিব। পোস্টে তিনি লেখেন- ‘পবিত্র এই রাতটিতে আমরা সর্বশক্তিমান আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই আমাদের সকল ভুলভ্রান্তির জন্য। করোনাভাইরাস মহামা’রির এই ক্রা’ন্তিকালে সর্বশক্তিমানের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা আমাদের জন্য আরও গুরুত্বপূর্ণ। তাই পবিত্র এই রাতে আমরা পরম করুণাময়ের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করি এবং সুন্দর একটি ভবিষ্যতের কামনা করি।’নিউজ ডেস্ক : বুধবার রাত সাড়ে null
null
null১২টা। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর তী’ব্র উত্তাল। চট্টগ্রামের পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে আছড়ে পড়ছে অন্তত ১২ ফুট উঁচু ঢেউ। তী’ব্রগতির বাতাসের সঙ্গে প্রবল বৃষ্টি। চারদিকেই ভ’য়ংকর চিত্র। সমুদ্রের ত’র্জ্জন-গ’র্জ্জনের সঙ্গে বৃষ্টি পাল্লা দিচ্ছে। এরই মধ্যে সৈকতের একস্থানে দেখা গেল একটি ঘোড়া দাঁড়িয়ে। ঘোড়ার কাছে যেতেই দেখা গেল চোখ দিয়ে পানি ঝড়ছে। ঘোড়াটি কাঁ’দছে! ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের এই দুর্যোগ মুহূর্তে ঘোড়াটিকে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যায়নি মনিব। সাধারণ null
null
nullসময়ে সৈকতে আসা পর্যটকদের ঘোড়ার পিঠে সোয়ার করে টাকা আয় করে মনিব। কিন্তু দুর্যোগ সময়ে ঘোড়াটিকে নিরাপদ আশ্রয়ে নেওয়ার প্রয়োজন মনে করেনি মনিব। এমন এক অমানবিক মনিব জুটেছে ঘোড়ার! সমুদ্র সৈকতে আগের রাতে গিয়ে দেখা গিয়েছিল অন্তত আট ফুট উঁচু হয়ে ঢেউ আছড়ে পড়তে। আর আজ রাতে আম্ফানের প্রভাবে উ’ত্তাল সাগরে আছড়ে পড়ছে ১২ ফুট উঁচু ঢেউ। প্রবল বৃষ্টি আর তী’ব্র বাতাসে যেখানে কোনো মানুষের দাঁড়িয়ে থাকা অসম্ভব হয়ে null
null
nullপড়েছে, সেখানে সৈকতে শুধুমাত্র একটি একা ঘোড়াই ছিল কা’ন্নারত। ঘোড়াটি দেখতে হাড্ডিসার। বোঝা যায়, দীর্ঘদিন সৈকত বন্ধ থাকায় ঘোড়ার মালিক এই ঘোড়াকে দিয়ে আয় করতে পারছিলেন না। তাই খাবারও দিচ্ছিলেন না। ক্ষুধা’র্ত ঘোড়ার সামনে কোনো খাবার দেখা যায়নি। এমন দুর্যোগ সময়ে আকাশের কা’ন্নার সঙ্গে পাল্লা দিয়েই যেন পানি পড়ছিল ঘোড়ার চোখ থেকে। যুক্তরাজ্যের সাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল মনোবিজ্ঞানীর গবেষণার তথ্য অনুযায়ী, পোষ মানানো হলে ঘোড়া মানব null
null
nullআচরণ বুঝে। মানুষের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর কৌশলও আয়ত্ব করতে পারে। গবেষণাকরা দাবি করেছিলেন, কোনো প্রাণী যখন মানুষের অনুভূতিসহ অন্যান্য সংকেত শনাক্ত করতে পারে, এর বৈজ্ঞানিক ও প্রায়োগিক তাৎপর্য থাকে, বিশেষ করে গৃহপালিত প্রাণীর ক্ষেত্রে। এই ঘোড়াও তার মনিবের সঙ্গে খাপ খাইয়ে বছরের পর বছর ধরে পতেঙ্গা সৈকতে আসা পর্যটকদের সাময়িক বিনোদন দিয়েছে নিজের পিঠে তুলে পর্যটকসহ সওয়ার হয়ে। ঘোড়াটি মনিবের সঙ্গে খাপ খাইয়ে চলতে null
null
nullশিখলেও মনিবের কাছে মানবিক আচরণ পায়নি। আবার করোনাভাইরাসের সং’ক্রমণ প্রাদুর্ভাবে নগরীর অনেক বেওয়ারিশ অভুক্ত কুকুরকে নগরীর মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনকে খাবার দিয়েছেন। সঙ্গে অন্য একাধিক ব্যক্তি ও সংগঠনও বেওয়ারিশ কুকুরকে খাবার দিয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের আগেই অনেক মানুষ ও গবাদী পশু নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধান পেয়েছে। প্রশাসন ও গবাদী পশুর মালিকেরা নিজেদের পশুগুলোকে নিরাপদে নিয়েছে। কিন্তু পতেঙ্গার নির্জন সৈকতে একা null
null
nullদাঁড়িয়ে থাকা ঘোড়াটি পায়নি আশ্রয় ও খাবার। তাইতো করোনাকালের নির্মমতা ও ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তা’ণ্ডবের শিকার ঘোড়ার চোখে এখন ঝড়ছে অঝোর কা’ন্না। সূত্র : কালেরকণ্ঠআন্তর্জাতিক ডেস্ক : ‘আমার ছেলেকে বাঁচান, শুধু ওকে বাঁচান’ শেষ আকুতি করে নিজে ডুবলেন সাগরে! এটাই ছিল সাবেক রেসলার শাড গ্যাসপার্ডের শেষ কথা। গত রোববার সমুদ্রে ভেসে গেছেন ডব্লু ডব্লুইর সাবেক তারকা গ্যাসপার্ড (৩৯ বছর)। পরিবার তিনদিন ধরে আশায় ছিল, লড়াকু গ্যাসপার্ড হইয়তো কোনো না কোনোভাবে টিকে রয়েছেন। কোনো আশ্রয় খুঁজে নিয়ে ঠিকই ফিরে আসবেন null
null
nullপরিবারের কাছে। কিন্তু সে আশাও শেষ হয়ে গেছে কাল। বুধবার সকালে সমুদ্র তীরে খুঁ’জে পাওয়া গেছে গ্যাসপার্ডের শরীর। ক্যালিফোর্নিয়ার ভেনিস সমুদ্র সৈকতে গত রবিবার দুর্ঘটনায় পড়েন গ্যাসপার্ড ও তাঁর ছেলে আরিয়েহ। লকডাউনের পর এই প্রথম আবার সৈকত উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছিল। গ্যাসপার্ড ও তাঁর ছেলে কোমর পানিতে সাতার কাটছিলেন। কিন্তু হঠাৎ তীব্র এক স্রোত এসে দুজনকে ভাসিয়ে নিয়ে যায়। তীর থেকে প্রায় ৭৫ গজ দূরে এ দুজনকে দেখে একজন লাইফগার্ড তাঁদের বাঁ’চানোর জন্য যান। ২ মিটারের বেশি উঁচু ঢেউয়ের মাঝে দুজনকে বাঁ’চানোর জন্য ‘রেসকিউ ক্যান’ বাঁধার চেষ্টা করেন ওই লাইফ গার্ড।null
null
null কিন্তু ১০ বছরের আরিয়েহ কোনোভাবেই বাঁধতে পারছিল না সেটা। তখনই গ্যাসপার্ড আগে ছেলেকে বাঁ’চানোর অনুরোধ করেন। সৈকতের ওই অংশের লাইফগার্ড প্রধান কেনিচি হ্যাসকেট ওই সময়ের অসহায়’ত্বের কথা জানিয়েছেন এভাবে, ‘ওই লাইফগার্ড তীর থেকে ৭৫ গজ দূরে দুজন মানুষকে বাঁ’চানোর লক্ষ্যে নেমেছিল। ভদ্রলোকের শারীরিক গঠন (সাড়ে ৬ ফিট উচ্চতা, ১২৩ কেজি) ও পানির অবস্থায়… এটা বোজা গিয়েছিল দুজনকে একবারে ফেরানো সমভব নয়… এমনnull
null
null সিদ্ধান্ত আমরা কখনোই তে চাই না। গ্যাসপার্ডের শেষ কথাটি ছিল “আমার ছেলেকে বাঁচান, শুধু ওকে বাঁচান।”’ লাইফগার্ড আরিয়েহকে তীরে এনেই আবার গিয়েছিলেন গ্যাসপার্ডের জন্য। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি, ‘৬০ সেকেন্ডের মধ্যে লাইফগার্ড ফিরেছিল শাডকে আনার জন্য। তাঁকে দেখেছিল কিন্তু একটা ঢেউ এসে ধাক্কা দিল পানির নিচে পাঠিয়ে দিল শাডকে।’ শাড আর মাথা তোলেননি। তবিবারে এই ঘটনার পর থেকে তাঁর খোঁজে সাতটি উ’দ্ধার অভিযান চালানো হয়েছিল। কিন্তু সারে null
null
null১৬৫ ঘন্টার অ’ভিযান ও ৭০ নটিক্যাল মাইল এলাকা খুঁ’জেও তাকে না পাওয়ায় অভিযান বন্ধ করে দেওয়া হয়। গতকাল সকালে সাগর থেকে ভেসে আসা একজনের মৃ’তদেহ খুঁজে পাওয়ার পর এক পুলিশ কর্তৃপক্ষকে জানায়। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সেটা গ্যাসপার্ডের বলে নিশ্চিত করেছে। ডব্লুডব্লুইর ক্রাইম টাইম জুটির অংশ ছিলেন গ্যাসপার্ড। ২০০৮ সালে জন সেনার সঙ্গে কিছুদিন জোট বেধেছিল ক্রাইম টাইম। ২০১০ অবসর নেওয়ার পর অভিনেতা হিসেবে ক্যারিয়ার গড়েছিলেন গ্যাসপার্ড।-প্রথম আলো 12 0 Google +0 1 0