ঢাকা, আজ রোববার, ১ নভেম্বর ২০২০

কক্সবাজারে চলন্ত গাড়িতে কিশোরীকে জ’বাই করে হ’ত্যা

প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৭ ১৫:১৪:০৭ || আপডেট: ২০২০-০৫-০৭ ১৫:১৬:০৪

কক্সবাজারের চকরিয়ায় চলন্ত গাড়িতে এক কিশোরীকে জ’বাই করে হ’ত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে তার লা’শ সড়কের ওপর ফেলে দেয়া হয়।বুধবার রাত ১০টার দিকে চকরিয়া-পেকুয়া-বাঁশখালী সড়কের চকরিয়ার কোনাখালী ইউনিয়নের মরং ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।তাৎক্ষণিকভাবে নি’হত কিশোরীর পরিচয় পাওয়া যায়নি। তার বয়স আনুমানিক ১৫/১৬ বছর হবে।

কোনাখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার যুগান্তরকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।এলাকাবাসী জানান, রাত ১০টার দিকে একটি সিএনজিচালিত বেবি টেক্সি থেকে ওই কিশোরীর জ’বাই করা লা’শ ফেলে দেয়া হয়। তার মুখ উড়না দিয়ে পেচানো ছিল।

কোনাখালী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল হুদা জানান, হয় তো ওই কিশোরীকে গাড়িতেই হ’ত্যা করে ওই জায়গায় নিয়ে ফেলে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।চকরিয়া থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান যুগান্তরকে জানান, লা’শ উদ্ধার করা হয়েছে। গাড়িটি আ’টক করার চেষ্টা চলছে।নিউজ ডেস্ক : প্রবাসীদের নিরা’পত্তার বিষয়টিতে সরকার সর্বো’চ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আগামী কয়েক সপ্তাহে বিদেশ থেকে ২৮ হাজার ৮৪৯জন প্রবাসী নাগরিক দেশে ফিরবেন। বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক বৈঠক শেষে তিনি এমন খবর দিয়েছেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রবাসী নাগরিকদের জন্য করণীয় নিয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ভিডিও কনফারেন্সে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ এবং পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

বৈঠক শেষে এক ভিডিওবার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগামী কয়েক সপ্তাহে ২৮ হাজার ৮৪৯ জন প্রবাসী নাগরিক দেশে ফিরবেন। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্য থেকে অনেকেই দেশে ফিরছেন। গত সপ্তাহে মধ্যপ্রাচ্য থেকে তিন হাজার ৬৯৫জন বাংলাদেশি নাগরিক ফিরেছেন। মধ্যপ্রাচ্যে যারা কা’রাগারে ছিলেন তাদের সেখানে ক্ষমা করে দেয়া হয়েছে।

তাদের ফেরত নিয়ে আসা হবে জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, মালদ্বীপে প্রবাসীদের অসুবিধা যেন না হয়, সেখানে আমরা খাবার পাঠিয়েছি। আগামীকাল সেখান থেকে ৪০০ বাংলাদেশি দেশে ফিরবেন। কুয়েত সরকার অনিব’ন্ধিত শ্রমিকদের ক্ষ’মা করে দিয়েছেন। সেখানে প্রায় সাড়ে চার হাজার বাংলাদেশি অনিব’ন্ধিত রয়েছেন।

তিনি জানান, কুয়েত থেকে বাংলাদেশিরা ফিরবেন। ওমান থেকে ফিরবেন। সৌদি আরব থেকে ৪ হাজার বাংলাদেশি ফিরবেন। ইরাকে অনেক লোকের চাকরি চলে গেছে। আমরা সেটা দেখছি। সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে কেউ করোনা ভাইরাসে মা’রা গেলে সেখান থেকে মরদেহ দেশে আনা যাবে না। তারা তাদের দেশে দা’ফন করবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তবে অন্য কোনো দেশ থেকে পাঠালে সেই ম’রদেহ পরিবারের কেউ দেখতে পাবেন না। তাই আমরা চাই, যেখানেই কেউ মা’রা যান, সেখানেই দা’ফন করা প্রয়োজন। সেটা হলেই ভালো হবে বলেও তিনি জানান।কুমিল্লা : করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় স্ত্রী-সন্তান ঘরে ঢু’কতে দেননি। তাই আশ্রয় নেন বোনের বাড়িতে। অঃপর সেখানেই মৃ’ত্যু হয় গার্মেন্টস কর্মীর! তিনি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার সুন্দলপুর ইউনিয়নের মুদাফর্দি গ্রামের নজরুল ইসলাম (৫৫)। মৃ’ত্যু হয় একই উপজেলার বোনের বাড়ি বারপাড়া ইউনিয়নের বারইকান্দি গ্রামে। বুধবার বিকালে তাকে দা’ফন করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঢাকার মিরপুরে একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন নজরুল ইসলাম। গত ৩ দিন আগে করোনা উপসর্গ নিয়ে নিজ বাড়িতে আসেন। শরীরে উপসর্গ থাকায় নিজের স্ত্রী ও সন্তানেরা বাড়িতে জায়গা না দিয়ে ঢাকায় চলে যেতে বলে। তখন রাত গভীর।

নজরুল নিরুপায় হয়ে বোনের বাড়ি বারপাড়া ইউনিয়নের বারইকান্দি গ্রামে লুকিয়ে আশ্রয় নেন। ৬ মে স্বাস্থ্যের অবনতি হলে বিষয়টি দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অবহিত করা হয়। চিকিৎকরা সেখানে পৌঁছানোর আগেই ওই ব্যক্তি মা’রা যান।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শাহিনুল আলম সুমন জানান, তার স্বাস্থ্যের অবনতি হলে রেপিড রেসপন্সটিম পাঠাই। এর মধ্যেই তিনি মৃ’ত্যুবরণ করেন। তার নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য বিধি মেনে দাফ’ন করা হয়। আত্মীয় স্বজন বা অন্য কেউ আগে তার সম্পর্কে আমাদেরকে জানালো না।

আরও দুঃখজনক হল স্ত্রী ও নিজ সন্তানরা তাকে নিজ বাড়িতে ঢু’কতে দিল না। দাউদকান্দিবাসীকে বলব, এই করোনাভাইরাস দুনিয়াতেই হাশরের মাঠে কি হবে তা দেখিয়ে দিচ্ছে। তাই সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে দয়া করে ঘরে থাকুন। নতুবা কালকে এমন মৃত্যু আপনারও হতে পারে।