ঢাকা, আজ মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

শিগগিরই বিদেশ থেকে দেশে ফিরবেন ২৯ হাজার প্রবাসী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৭ ১৪:৪০:২৩ || আপডেট: ২০২০-০৫-০৭ ১৪:৪০:২৩

নিউজ ডেস্ক : প্রবাসীদের নিরা’পত্তার বিষয়টিতে সরকার সর্বো’চ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আগামী কয়েক সপ্তাহে বিদেশ থেকে ২৮ হাজার ৮৪৯জন প্রবাসী নাগরিক দেশে ফিরবেন। বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক বৈঠক শেষে তিনি এমন খবর দিয়েছেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রবাসী নাগরিকদের জন্য করণীয় নিয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ভিডিও কনফারেন্সে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ এবং পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

বৈঠক শেষে এক ভিডিওবার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগামী কয়েক সপ্তাহে ২৮ হাজার ৮৪৯ জন প্রবাসী নাগরিক দেশে ফিরবেন। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্য থেকে অনেকেই দেশে ফিরছেন। গত সপ্তাহে মধ্যপ্রাচ্য থেকে তিন হাজার ৬৯৫জন বাংলাদেশি নাগরিক ফিরেছেন। মধ্যপ্রাচ্যে যারা কা’রাগারে ছিলেন তাদের সেখানে ক্ষমা করে দেয়া হয়েছে।

তাদের ফেরত নিয়ে আসা হবে জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, মালদ্বীপে প্রবাসীদের অসুবিধা যেন না হয়, সেখানে আমরা খাবার পাঠিয়েছি। আগামীকাল সেখান থেকে ৪০০ বাংলাদেশি দেশে ফিরবেন। কুয়েত সরকার অনিব’ন্ধিত শ্রমিকদের ক্ষ’মা করে দিয়েছেন। সেখানে প্রায় সাড়ে চার হাজার বাংলাদেশি অনিব’ন্ধিত রয়েছেন।

তিনি জানান, কুয়েত থেকে বাংলাদেশিরা ফিরবেন। ওমান থেকে ফিরবেন। সৌদি আরব থেকে ৪ হাজার বাংলাদেশি ফিরবেন। ইরাকে অনেক লোকের চাকরি চলে গেছে। আমরা সেটা দেখছি। সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে কেউ করোনা ভাইরাসে মা’রা গেলে সেখান থেকে মরদেহ দেশে আনা যাবে না। তারা তাদের দেশে দা’ফন করবে।

ররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তবে অন্য কোনো দেশ থেকে পাঠালে সেই ম’রদেহ পরিবারের কেউ দেখতে পাবেন না। তাই আমরা চাই, যেখানেই কেউ মা’রা যান, সেখানেই দা’ফন করা প্রয়োজন। সেটা হলেই ভালো হবে বলেও তিনি জানান।আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্র অধিকৃত পশ্চিম তীরকে ইসরাইলি ভূখণ্ড হিসেবে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে স্বীকৃতি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইসরাইলে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডেভিড ফ্রাইডম্যান। এ খবর জানিয়েছে তুর্কি সংবাদ মাধ্যম ইয়েনি শাফাক।

তেলআবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে আনার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বুধবার ইসরাইল হায়ুম সংবাদ মাধ্যমকে এক সাক্ষাতকারে মার্কিন রাষ্ট্রদূত এ কথা জানান। তিনি বলেন, স্বীকৃতির আগে পূর্ব পদক্ষেপগুলো সম্পন্ন করা দরকার। এ নিয়ে ওয়াশিংটনের নতুন কোনো শর্ত আরো’পের পরিক’ল্পনা নেই।

ফ্রেইডম্যান বলেন, কিছু পদক্ষেপ নেয়া হলে যুক্তরাষ্ট্র ইসরাইলি সার্বভৌমত্ব হিসেবে স্বীকৃতি দেবে। এর মধ্যে মানচিত্র সম্পূর্ন করা, সি এলাকায় ইসরাইলি বসতি তৈরি ব’ন্ধ করে দেয়া (যেটা সংযো’জন থেকে বাদ পড়ে) এবং যখন ইসরাইল প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি ইসরাইল-ফিলিস্তিন শান্তি পরিক’ল্পনায় রাজি হবে। তবে নেতানিয়াহু ইতিমধ্যেই রাজি হয়ে গেছেন। এটি হয়ে গেলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্বীকৃতি দিতে প্রস্তুত।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট দলের প্রধান বেনি গ্যানটেজের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে একমত হলে আগামী ১ জুলাই সংযোজন করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। উভয়েই বর্তমানে ঐক্যমতে সরকার গঠন করেছেন।

0 0 Google +0 0 0