ঢাকা, আজ বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০

তিন মাসের বেতনের টাকা দুস্থদের দান করলেন আশরাফুল !

প্রকাশ: ২০২০-০৪-২৯ ১০:১১:০৯ || আপডেট: ২০২০-০৪-২৯ ১০:১১:০৯

করোনাকালের সঙ্কট মোকাবিলায় অসহায় মানুষের সাহায্যার্থে এগিয়ে এসেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। বিসিবি থেকে পাওয়া তিন মাসের অগ্রিম বেতনের পুরোটাই করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে দান করেছেন তিনি।

জানা গেছে, বিপিএলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের কারণে ২০১৩ সাল থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চুক্তির বাইরে ছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল। তবে ২০১৮ সালে ফের ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরেন এবং বিসিবির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন তিনি।

সেই সুবাদে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে এবার বিসিবি থেকে তিন মাসের অগ্রিম বেতন পেয়েছেন তিনি। যে বেতনের পুরোটাই করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে দান করলেন আশরাফুল।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় সবারই এই কঠিন সময়ে এগিয়ে আসা উচিৎ। দেশের এমন মহামারি হয়েছে বলেই এমনটা করেছি। আমি বিসিবি থেকে আমার তিন মাসের বেতনের ৮৫ হাজার টাকা ইতোমধ্যেই দুস্থদের দান করে দিয়েছি।

কারো মুখে যদি একটু হলেও হাসি ফোটে সেটা নিজের কাছেই ভালো লাগবে।’ এখানেই শেষ নয়। জানা গেছে, এমন দুর্যোগে অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে আগামী বৃহস্পতিবার নিজের স্মারক ব্যাট নিলামে তুলবেন তিনি।

এই ব্যাট দিয়েই অভিষেক টেস্টে সর্বকনিষ্ঠ সেঞ্চুরিয়নের রেকর্ড গড়েছিলেন আশরাফুল। অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি করা ব্যাটের ভিত্তিমূল্য ১৫ লাখ টাকা নির্ধারণ করার ইচ্ছা তার।

নিলামের মাধ্যমে প্রাপ্ত অর্থে নিজের নামে ফাউন্ডেশন খুলে এর মাধ্যমেই অসহায়দের সেবায় তা ব্যয় করবেন তিনি

ইরানে একজন করোনারোগীও বিনা চিকিৎসায় মারা যায়নি: রুহানি

শত প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ইর্ষনীয় সাফল্য পেয়েছে ইরান। এমন দাবি করে দেশটির প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে চিকিৎসা সরঞ্জাম সংগ্রহের ক্ষেত্রে নানা প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হয়েছে তেহরান। এতদ সত্ত্বেও করোনাভাইরাস মোকাবেলায় তার দেশ উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি স্থানীয় শনিবার সন্ধ্যায় তেহরানে বেসরকারি উদ্যোক্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে এসব কথা বলেন।

করোনাভাইরাসকে বিশ্বের সবগুলো দেশের সরকারের জন্য একটি ঐতিহাসিক পরীক্ষা হিসেবে উল্লেখ করে রুহানি বলেন, দেশের অর্থনীতি সচল রেখে কীভাবে জনগণের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা যায় গোটা বিশ্ব এখন সে পরীক্ষায় অবতীর্ণ।

ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের অবৈধ নিষেধাজ্ঞার প্রতি ইঙ্গিত করে রুহানি বলেন, বিশ্বের বহু উন্নত দেশ করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেলেও ইরানে এই প্রাণঘাতী রোগে আক্রান্ত কোনো রোগী বিনা চিকিৎসায় মারা যায়নি। নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও করোনা রোগীদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করেছে তেহরান।

করোনার মাত্রা হ্রাস; ১২৭ শহরের মসজিদ খুলে দিচ্ছে ইরান

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি তার দেশের অন্তত ১০০ শহরের মসজিদসহ অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান আবার খুলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।সম্প্রতি ইরানে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ার পর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার স্বার্থে সারাদেশের সকল মসজিদ বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল।

রোববার তেহরানে করোনা মোকাবিলায় গঠিত জাতীয় টাস্কফোর্সের নিয়মিত বৈঠকের পর এর সভাপতি ড. হাসান রুহানি বলেন, করোনা সংক্রমণের মাত্রা কমে আসার ভিত্তিতে সারাদেশের শহরগুলোকে লাল, হলুদ ও সাদা এই তিন ভাগে বিভক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

লাল ও হলুদ হিসেবে চিহ্নিত শহরগুলোতে আগের মতোই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নিয়ম চালু থাকবে। তবে সংক্রমণ কমে আসার কারণে সাদা হিসেবে চিহ্নিত প্রায় ১২৭টি শহরে বিধিনিষেধ উঠিয়ে নেয়া হচ্ছে। শিগগিরই কিছু নিয়ম মেনে চলার শর্তে এসব শহরের মসজিদগুলো মুসল্লিদের জন্য খুলে দেয়া হবে বলে জানান প্রেসিডেন্ট রুহানি।

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি
সাদা শহর চিহ্নিত করার উপায় সম্পর্কে তিনি বলেন, কোনো শহরে যদি এক সপ্তাহে নতুন করে কেউ করোনায় আক্রান্ত না হন বা মারা না যান এবং সেইসঙ্গে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকে তবে ওই শহরকে আরো এক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ করা হবে। দ্বিতীয় সপ্তাহে যদি একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে তাহলে ওই শহরকে ‘সাদা শহর’ হিসেবে চিহ্নিত করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করা হবে।

ইরানে এ পর্যন্ত ৯০ হাজারের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৬৯ হাজার ৬৫৭ জন সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেছেন। এ ছাড়া, ইরানে এই রোগে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৫ হাজার ৭১০ জন