ঢাকা, আজ সোমবার, ৮ মার্চ ২০২১

ডঃ জাকির নায়েকের পোষাক নিয়ে খুবই কমন প্রশ্নের বিশ্লেষণ

প্রকাশ: ২০১৯-১০-০২ ০৯:৫৬:৩১ || আপডেট: ২০১৯-১০-০২ ১৪:৩৬:০৩

ডঃ জাকির নায়েকের পোষাক নিয়ে খুবই কমন প্রশ্নের বিশ্লেষণ–ডঃ জাকির নায়েক–তার সকল লেকচারে বলেছেন আমি বিভিন্ন ধর্মের এবং আপনাদের ছাত্র তিনি কখনও বলেন নাই যে আমি আলেম বা শিক্ষককুরআন হাদীসের কোথাও লিখা নেই যে সুন্নত মানতে হলে লম্বা পায়জামা পান্জাবি পরিধান করতেই হবে,,সুন্নত মানতে হলে সুন্নতি নিয়ম মানতে হয় সেই নিয়ম জাকির নায়েকের পোশাকের মধ্যে আছে তিনি পোশাকের ক্ষেত্রে সুন্নাতের সীমারেখা লঙ্ঘন করেননি……আর বিশেষ কথা হলো উনি একজন ডক্টর তাই উনি সেই মানের পোশাক পরিধান করেছেন এবং সেই পোশাকের মাঝে সুন্নতের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন,,,উনি যদি লম্বা পান্জাবি আর পাগড়ি পরিধান করতেন, তাহলে আপনাদের মতো লেবাসপুজারী ব্যাক্তিরা এবং এই শ্রেণীর গোড়া মুকাল্লিদরা তখন বলত জাকির নায়েক তো আলেম নয় সে আলেমের পোষাক পড়ে মানুষ কে বোকা বানাচ্ছে,,,,

কেননা তারা পান্জাবী টুপি পাগড়ীকে বর্তমান সমাজের আলেম বা আলেম পরিবারের পৈতৃক সম্পত্তিরূপে নির্ধারণ করে রেখেছে, যদিও বিশ্বপরিক্রমা দূনিয়ার বহুসংখ্যক অমুসলিমই পান্জাবি টুপি পাগড়ী পরিধান করে,,,,,উনি যদি শুধু মুসলমান দের সামনে লেকচার দিতেন তাহলে পান্জাবি আর পাগড়ি ই পরিধান করতেন,,,উনি সকল ধর্মের, সকল শ্রেণীর, ও সকল জাতির সামনেই লেকচার দেন,,,তাই সকল জাতির সামনে যে পোষাকটা কমন উনি সেটাই পরেছেন,,,
তদুপরি তিনি মাঝেমধ্যে টুপি জোব্বাও পরেন…কারো যদি জাকির নায়েক সম্পর্কে কোনো ভুল ধারণা থাকে তাহলে শালীন ভাষায় ভদ্রভাবে আমাকে বলুন ইনশাআল্লাহ তার উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো গালাগালি করে নিজের অরিজিনাল পরিচয় দিবেন না….